1. admin@aloketosatkhira.com : admin :
  2. bablu.press14@gmail.com : aloketo satkhira bablu : aloketo satkhira bablu
  3. abdurrahman10101984@gmail.com : aloketo satkhira babu : aloketo satkhira babu
  4. hasanalibacchu2014@gmail.com : aloketo satkhira bacchu : aloketo satkhira bacchu
  5. kamrulpress@gmail.com : aloketo satkhira kamrul : aloketo satkhira kamrul
  6. leto.debhata@gmail.com : aloketo satkhira lito : aloketo satkhira lito
  7. salem8720@gmail.com : aloketo satkhira salim : aloketo satkhira salim
  8. taposhg588@gmail.com : aloketo satkhira tapos : aloketo satkhira tapos
ইসলাম-অবমাননা রুখতে স্থায়ী সমাধান মিছিল মিটিং নাকি আইন তৈরি - আলোকিত সাতক্ষীরা
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১০:২৫ অপরাহ্ন
বিশেষ:
কলারোয়ায় পরকীয়া প্রেমিকার সাথে দেখা করতে যেয়ে লাশ হলেন প্রমিক সাতক্ষীরার এক উপজেলায় তিন মাসে ৩৫ গৃহবধূ প্রেমিকের সাথে উধাও ১১ বছরে কালের চিত্র, পাঠকের নিরন্তর ভালোবাসায় সিক্ত   সাতক্ষীরায় তরুণদের জুয়ার ফাঁদে ফেলে অঢেল সম্পত্তির মালিক শাহিনুর শরীয়তপুর থেকে অপহরণ হওয়া স্কুল ছাত্রী দেবহাটা সিমান্ত থেকে উদ্ধার জুতা পায়ে স্মৃতিসৌধে বিক্ষোভের ফটোসেশন করল তালা যুবলীগ সভাপতি আশাশুনির সাবেক ওসির বিরুদ্ধে নির্বাচনে জেতাতে ২৬ লক্ষ টাকা নেয়ার অভিযোগ সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে মেয়েকে ধর্ষণ পদ হারাবেন সাতক্ষীরা পৌর মেয়র তাসকিন আহমেদ! (ভিডিও) সাতক্ষীরায় অস্ত্রসহ ফরিদা খাতুন গ্রেপ্তার
সর্বশেষ:
কলারোয়া পৌরসভায় ২০২২-২৩ অর্থ বছরের উন্মুক্ত বাজেট অধিবেশন অনুষ্ঠিত নিখোঁজের ২৪ ঘন্টা পর সুন্দরবন থেকে জেলের মরদেহ উদ্ধার কলারোয়ায় পরকীয়া প্রেমিকার সাথে দেখা করতে যেয়ে লাশ হলেন প্রমিক শিক্ষক হত্যার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানালো কলারোয়া বেত্রবতী হাইস্কুল সাতক্ষীরা মেডিকেল হাসপাতালে এক রোগীর চিকিৎসার নগত টাকা দিলেন ইতালি প্রবাসী আশাশুনির শোভনালীতে বালির পরিবর্তে মাটি এবং নিন্ম মানের ইট দিয়ে সোলিং নির্মাণ  আশাশনিতে প্রেমের টানে ২দিনের ব্যবধানে পেমিক-পেমিকার আত্মহত্যা আশাশুনি থানা পুলিশের বিশেষ অভিযান  আশাশুনি নাগরিক কমিটির  সভা অনুষ্ঠিত দেবহাটার ২ কৃতি শিক্ষার্থীর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ
বিজ্ঞাপন

ইসলাম-অবমাননা রুখতে স্থায়ী সমাধান মিছিল মিটিং নাকি আইন তৈরি

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৫ জুন, ২০২২
  • ৩৭ দেখেছেন

ধর্ম অবমাননা একটি রাষ্ট্রের জন্য অশুভ সংকেত কারন সামান্য একটি বাক্য গোটা দেশকে অশান্তি ও অরাজকতার মাঝে ফেলে দেয়। দ্রুত ও কার্যকারী ব্যাবস্থা না নিলে সমাজ দেশ সব কিছুর ক্ষতি সাধন হয়।
রাষ্ট্র ব্যবস্থায় যে কোন কিছুর স্থায়ী সমাধান হয় আইন তৈরীর মাধ্যমে।


সেক্ষেত্রে মহানবী (স) কে এবং ইসলামকে অবমাননার বিরুদ্ধে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে আইন তেরী করা হচ্ছে স্থায়ী সাফল্য অর্জন।
বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে ভারতে মহানবী (স) কে কটূক্তির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ হচ্ছে।
এর আগে ফ্রান্সে ইসলাম অবমাননার প্রতিবাদেও বাংলাদেশে এমন প্রতিবাদ হয়েছিলো।
কথা হচ্ছে, এসব প্রতিবাদের আলটিমেট লক্ষ্য বা সফলতা কি হওয়া উচিত ? বাংলাদেশে যে প্রতিবাদগুলো হচ্ছে, তাদের প্রথম টার্গেট থাকবে, বাংলাদেশ সরকারকে বাধ্য করা, যেন তারা মহানবী (স) কিংবা ইসলাম অবমাননার বিরুদ্ধে আইন তৈরী করে।


উল্লেখ্য বাংলাদেশে কিন্তু এখন ইসলাম ধর্ম অবমাননা নিয়ে পৃথক কোন আইন নেই। অথচ ইসলামকে বাংলাদেশ সাংবিধানিক রাষ্ট্রধর্ম হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে এবং বাংলাদেশের ৯৫% মানুষ মুসলমান। বাংলাদেশে ধর্ম অবমাননার যে আইন আছে তা খুবই দুর্বল আইন এবং সব ধর্ম মিলিয়ে আইন। রাষ্ট্রধর্মের আলাদা মর্যাদা সেখানে দেয়া হয় নাই।
এজন্য বলছি, বাংলাদেশে যে প্রতিবাদগুলো হচ্ছে, তার ফলাফল যেন হাওয়ায় মিলিয়ে না যায় এজন্য একটি লক্ষ্য ঠিক করে সবার প্রতিবাদ করা উচিত। সবার একটি নির্দ্দিষ্ট দাবী তোলা উচিত। দাবীটা হচ্ছে, রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম অবমাননার বিরুদ্ধে সু-নির্দ্দিষ্ট আইন চাই। সেই আইনে রাষ্ট্রধর্ম ধর্ম অবমাননার শাস্তি রাষ্ট্রদ্রোহীতা হিসেবে বিবেচনা করতে হবে।
প্রতিবাদ মিছিলে যদি এই দাবীর পক্ষে সবাই একযোগে দাবী তুলে,
এবং সর্বক্ষেত্রে আলোচনা হয়, তবে এক সময় তার সফলতা আনা অবশ্যই সম্ভব।

কয়েকদিন আগে উচ্চ আদালত ঘোষণা দিয়েছে- বোরকা পরা মুসলিম নারীদের সাংবিধানিক অধিকার।
এই কাজটি কিন্তু ব্যক্তি উদ্যোগে মুসলমানরা রিট করে করেছে।
বোরকা নিয়ে হাজারটা মিছিল-বিক্ষোভ করলেন, তার থেকে বেশি ফলদায়ক হচ্ছে, উচ্চ আদালতের এ ঘোষণা। কারণ রাষ্ট্রেরই তখন দায়িত্ব হয়ে যায়, বোরকা বিরোধীদের দমন করা।

ঠিক তেমনিভাবে আপনি কটূক্তির প্রতিবাদে হাজারটা মিছিল করলেন, শক্ত শক্ত শ্লোগান দিলেন,
কিন্তু সেই শ্লোগান এক সময় হাওয়ায় মিশে যাবে। এর বদলে স্থায়ী সমাধান হবে, যদি ইসলাম ও মহানবী (স) এর অবমাননার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয়ভাবে আইন পাশ করা যায় কিংবা উচ্চ আদালত থেকে কোন রায় নিয়ে আসা যায়্। দেশে এ আইন পাশ হওয়ার পর আন্তর্জাতিকভাবেও এমন আইনের দাবী তোলার টার্গেট থাকতে হবে।

তাই প্রতিবাদ বিক্ষোভ যদি করতেই হয়, তবে স্থায়ী সমাধানের কোন টার্গেট বা দাবী নিয়ে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করুন, তখনই এ প্রতিবাদ বিক্ষোভ কাজে আসবে। একই সাথে একটি রাষ্ট্র সুন্দরভাবে ভাবমুক্তি উজ্বল রাখতে পারে বিশ্বের দরবারে কোন প্রকার অপ্রিতিকর বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয়না রাষ্ট্রপ্রধান ও দেশের মানুষ কে।

সরদার আবু সাইদ
(সাংবাদিক) দৈনিক নব জীবন সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

আপনার মতামত দিন
বিজ্ঞাপন

শেয়ার করুণ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এরকম আরও নিউজ
© All rights reserved © 2020 Aloketo Satkhira
Theme Customized By BreakingNews